হুট করেই যমুনা টেলিভিশনের মানবসম্পদ ব্যবস্থাপক রিয়াজ ভাই আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের সাংবাদিকতায় পড়া শিক্ষার্থীদের কয়েকজনের সংগে আমার পরিচয় করিয়ে দেয়। সংগে ছিলেন আফরোজা সোমা ম্যাম, যিনি আমি নরসুন্দা নদের হাওয়া! সোমা ম্যাম সিনেমা নিয়ে লেখালেখির জন্য বেশ অনলাইনে আলোচিত।

Shoma
আফরোজা সোমা। ছবিসূত্র: ফেসবুক/মার্চ২০১৯

টেলিভিশনের প্রাক্তণ গবেষক হিসেবে শিক্ষার্থীদের কনফিউশনে ফেলতে পেরেছি আমি শতভাগ। সাংবাদিকতা দুনিয়ায় বাংলাদেশে ৬ অংকের বেতন নাই, কিন্তু কমিউনিকেশনের দুনিয়াতে ৬ অংকের বেতন বেশ সাধারণ একটা বিষয় বলে জানাই শিক্ষার্থীদের। সামনের দুনিয়াতে সাংবাদিকতার ভবিষ্যত নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রশ্নের কোনই উত্তর আমি দিতে পারি নাই, যেহেতু আমি সাংবাদিকই না। আমি কিছু কিওয়ার্ডস ডেটা জার্নালিজম, ভিআর কনটেন্ট-এসব নিয়ে কথা বলি। উন্নয়ন সাংবাদিকতা ও এনজিওগুলোতে কমিউনিকেশনের চাকরির সুযোগ আছে বলে আমি তাদের কাছ থেকে জানতে পারি। আমি অবশ্য সবাইকে বই পড়ার কথা জানাই। ৪ বছরে ৪০টা ননফিকশন বই পড়া যে কত কাজের সেটা আমার ছোটবেলায় কেউ যদি বলতো।

শিক্ষার্থীদের কথার প্রেক্ষিতে বলতে পারি, আমাদের সময় বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন ইন্ডাস্ট্রিয়াল এংগেজমেন্ট ছিল না। যাও ছিল সেসবকে ভালো স্টুডেন্টদের জন্য বরাদ্ধ থাকতো। আমরা কে? নেটওয়ার্কিং বিষয়টা যে সময়ই কাজের, দারুণ সেটা কে শেখাবে আমাদের। আফরোজা সোমা ম্যাম, শিক্ষার্থীদের ব্যবহারিক শেখার কথা জানান। তার কথা সংক্ষিপ্ত কিন্তু দারুণ।
শিক্ষার্থীদের কেউ কেউ ফিচার রাইটিং বিষয় নিয়ে কথা বলেন। কি যে বলেছি! উল্টো জেনেছি, কেন মানুষ ফিচার পড়ে তার কারণ। সাংবাদিকতা বিষয়টা যে প্রতিদিনের শেখার বিষয়, সেটা এক শিক্ষার্থী জানায়। (নাম বলে নাই) আরেক শিক্ষার্থী সি+ প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ জানে, আগামীর সাংবাদিকতায় যে প্রযুক্তিময় সেটা এরা জানে ভালো মতই।

আমি যা শিখেছি আজ ওদের কাছ থেকে:
* যে যত আগে প্রযুক্তি অ্যাডপ্ট করবে তারা নতুন ক্যারিয়ার খুঁজে পাবে।
* জানার জন্য ব্যবহারিক শিক্ষার গুরুত্ব অনেক।
* ঠেকে শিখলে সেটা অনেক কাজে দেয়।

ফিচার ছবি: কলাভবনের নিচতালায় আমাদের ছোটবেলার ছবি।

-- Stay cool. Embrace weird.
Total 1,242 views. Thank You for caring my happiness.

Comments

comments