২২ থেকে ২৪ নভেম্বর ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২য় আন্তর্জাতিক কমিউনিটি স্বাস্থ্যকর্মী সম্মেলন। আমি বিভিন্ন ঘটনার প্রেক্ষিতে সম্মেলনে একজন কর্মী হিসেবে কাজের সুযোগ পেয়েছিলাম। নানা কিছু শেখার সুযোগ পাই, সেই শেখার কথা অন্যদের জানাতে চাই। এর আগে গণিত অলিম্পিয়াডের মত দেশীয় আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের মত কাজ করলেও বিদেশী অতিথিদের নিয়ে অনেকদিন পরে কাজ করেছি। সর্বশেষ, ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ছিল।

ICDDRB_CHW

যা যা শিখেছি:
-জীবনে কখনই কোন কিছু নিজের ওপর নিয়ে ভারগ্রস্ত করা যাবে না। জীবন হচ্ছে নদীর নৌকার মত। আপনি নৌকাতে বেশি জিনিষ নিলে কিংবা পানি ওঠে গেলে আপনি ডুবে যাবেন। তাই যে কোনো ইভেন্ট হউক কিংবা ব্যস্ত জীবনে বেশি আকড়ে থাকা যাবে না।
-নেতিবাচকতা থাকবেই। সব মানুষ সমান না। আপনি যতই ইতিবাচক থাকুন না কেন, আপনার চারপাশে বৈচিত্র্যপূর্ণ বুদ্ধিমান-নির্ভৌতিক মানুষ থাকবেই। তাদের নিয়ে বেশি ঘাটলে চলবে না।
-কোন কিছুই মাথায় রেখে দেয়া যাবে না। ইভেন্ট হউক কিংবা দৈনন্দিন জীবন হউক, কখনই সব মাথায় রাখা যাবে না। কাগজে কলমে না লিখে রাখলে বিপদ, ভুলে যাবো।
-যে কোনো ঝামেলাপূর্ণ পরিস্থিতিতে যে ঝামেলা করছে তাকে সরিয়ে দিন! ঝামেলা চলে যাবে। ইরাকে সাদ্দাম ঝামেলা করছিল, আমেরিকা তাকে সরিয়ে দিয়ে ঝামেলা সাময়িক মুক্ত করেছিল না? ইভেন্টের ক্ষেত্রেও একই, কেউ কোন ঝামেলা করলে আপনার ভুল থাকুক না থাকুক তাকে সরিয়ে দিন!
-বড়দের নিচে কাজ করা জানতে হবে। সিম্পোজিয়ামে আইসিসিডিআর,বি থেকে নূসরাত আপা, দিলরুবা আপার সাথে সরাসরি কাজ করেছি, সেভ দ্য চিলড্রেন থেকে ফারজানা আপা, সানমার কমিউনিকেশন্স এজেন্সী থেকে রাজীব ভাই, কমিউনিকেশন কনসালটেন্ট মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে সরাসরি কাজের সময় থেকেছি। নিজে কাজ করিনি, কিন্তু দেখেছি, শিখেছি।

-কয়েকটি ইনফোগ্রাফিক্স তৈরির কাজে যুক্ত ছিলাম। বড় কাজ কিন্তু ছোট সংযুক্তি ছিল বেশ কার্যকর শিক্ষা।
-অ্যাবস্ট্র্যাক্ট বুক তৈরির কাজটা ভীষণ শিক্ষনীয় ছিল আমার। কঠিন বিজ্ঞানের ছাত্র না বলে সবই মাথার ওপর দিয়ে গেছে। কিন্তু সিস্টেম থিওরীর কল্যানে কাজটা শেখার সুযোগ পাই।
-সব কিছুতে যতটা পারা যায় ততই তথ্য গ্রহণের দিকে মনোযোগ দিতে হবে। যত তথ্য সিদ্ধান্ত গ্রহণে সুযোগ দিতে হবে।
-কোন একটা কারণে এবারের ইভেন্টে আমার সময় বা উপস্থিতি নিয়ে তেমন প্রশ্ন ওঠে নাই। সব কিছুকে প্রোজেক্ট ম্যানেজমেন্ট হিসেবে ভাবলে এসব ঝামেলা কম হয়।

মিশন নিয়ে প্যাশনেট যারা কাজে তাদের সঙ্গে যুক্ত হলে নিজের দুর্বলতাগুলো জানা যায়। আইরিন আপার মিশনে এই প্রোজেক্টে কাজের অভিজ্ঞতা আসলেই দারুণ।

-- Stay cool. Embrace weird.
Total 100 views. Thank You for caring my happiness.

Comments

comments