নতুন মানুষের সঙ্গে প্রথম পরিচয় হলে বইয়ের কথা জিজ্ঞেস করি। লোকজন পাওলো কোয়েল আর মার্কেজ কিংবা সালমান রুশদির বইপত্রের নাম বলে। খুব কম মানুষের কাছ থেকে ননফিকশন ক্যাটাগরির ভালো বইয়ের রেফারেন্স পাই। গত মাসে সিরিয়ান এক দাসের কথা ড. সিরাজুল ইসলাম স্যারের এক লেখায় দেখতে পাই। প্রথম শতকের এক দাসের নাম ছিল পাবলিয়াস সাইরাস। পাবলো এস্কোবার নামটির কারণে পাবলিয়াস নামটিতে আগ্রহ জন্মে আমার। ইন্টারনেটের অন্তর্জাল খুঁজে সাইরাসকে জানার চেষ্টা করলাম।

Meister_der_Kahriye-Cami-Kirche_in_Istanbul_005

সিরিয়ান দাস ছিলেন সাইরাস। ১৯১১ সালে পশ্চিমা বিশ্বে প্রথম সাইরাসকে নিয়ে আগ্রহ জন্মে। সাইরাস সিরিয়া থেকে ইতালিতে দাস হিসেবে বিক্রি হয়েছিলেন। মধ্যবয়সে জ্ঞানের প্রতি আগ্রহের কারণে সাইরাসকে তার মনিব মুক্ত করে দেন। The Moral Sayings of Publius Syrus: A Roman Slave সাইরাসের কথার এক বই। অসাধারণ লেগেছে আমার কাছে। সেই বই থেকে কয়েকটি লাইন নিয়ে এই পোস্ট।

“আপনি কি মহান কোন সাম্রাজ্য তৈরি করতে চান? নিজের উপর নিয়ন্ত্রণ তৈরি করুন।“

“শত্রুতা আমাদের দেখিয়ে দেয় আমাদের বন্ধু আছে, নাকি বন্ধুত্বের ছায়ামাত্র?”

“পাবলিক অপিনিয়নের চেয়ে নিজের মননের সঙ্গে পরামর্শ নিন।”

“বুদ্ধিদীপ্ত মানুষরা অন্যদের খেয়াল করে নিজের ভুলগুলো শুধরানোর চেষ্টা করেন।”

“নিজের ভুল হলে প্রথমে নিজে হাসুন, তাহলে অন্যরা আপনাকে নিয়ে হাসবে না।”

সে কখনই সুখি হয় না যার ভাবনা আর ভয় এক সঙ্গে চলে।

কেউ জানে না আপনি কি করতে পারেন যতক্ষণ না আপনি কিছু চেষ্টা করবেন।

সব সময় নিরব থাকুন, কিংবা নিরবতার চেয়ে দারুণ কিছু বলুন।

-- Stay cool. Embrace weird.
Total 925 views. Thank You for caring my happiness.

Comments

comments