আমরা কোন কাজে কিভাবে অভিজ্ঞ হই? কোন কাজ বার বার করার অভিজ্ঞতা থেকেই আমাদের অভিজ্ঞ হয়ে ওঠা। এই পথ-পরিক্রমায় আমাদের মধ্যে নির্দিষ্ট কিছু বিশ্বাস তৈরি হয়। আমাদের নিজেদের সক্ষমতা, আমাদের দ্বারা কি সম্ভব, কি অসম্ভব-এসব আমাদের মধ্যে জন্ম নেয়। এখানেই মূল সমস্যা দেখা যায়, এসব বিশ্বাস আমাদের পেছন থেকে আটকে রাখে। কোন কাজ ঠিক মতো করাই আসলে একমাত্র উপায় না। যে বিশ্বাসের কারণে আমরা পথে যতটুকু গিয়েছি, বাকিটুকু একই বিশ্বাসের জোরে যেতে পারবো কিনা সেটা একটা প্রশ্ন থেকে যায়।
এক্সপার্ট আর মাস্টার শব্দ নিয়ে আমরা তেমন একটা মাথায় নেই না। আপনি কোন বিষয়ে এক্সপার্ট হতে চান কিংবা মাস্টার হতে চান তা নির্ভর করে আপনার মনের ওপর। মাস্টার হতে চাইলে আপনার কাজ শুরু করতে হবে বিগিনার্স লেভেল। মাস্টার হতে চাইলে এক্সপার্ট দৃষ্টিভঙ্গিতে আটকে থাকলে চলবে না। শুরু করতে হবে বিগিনার্স লেভেল থেকে।
জেন বৌদ্ধিক আদর্শের একটি কথা আছে শোশিন, shoshin (初心)। শোশিন মানে হচ্ছে বিগিনার্স বা নবিশ মন। যে মন সব নতুন কিছু গ্রহণ করতে পারে আর প্রাক্তন ধারণা থেকে মুক্ত।
বিগিনার্স মাইন্ডে অনেক সম্ভাবনা থাকে, এক্সপার্ট মাইন্ডের সুযোগ বেশ কম থাকে। বিগিনার্স লেভেলের কথা মনে করুন। আপনার প্রথম সাঁতার শেখা বা ক্রিকেট খেলার কথা মনে করুন, কিংবা ক্যারিয়ার বা পড়াশোনার শুরুর দিকে। তখন শেখার উপায় কি ছিল? তখন সামনে কতগুলো পথ খোলা ছিল? বিগিনার্স লেভেলে আমাদের সামনে অনেক সম্ভাবনার পথ খোলা থাকে।
নবিশ অবস্থায় আমাদের মন ভুলের ঊর্ধ্বে থাকে, কিন্তু এক্সপার্ট লেভেলে আমরা ভুল মেনে নিতে পারি না। বিগিনার্স লেভেলে আমরা নিজেরা নিজেদেরকে ভুলকে মেনে নিতে পারি। যেহেতু আমাদের ভুল করা সম্পর্কে তখন জড়তা থাকে না, তখন আমাদের ভালো করার সুযোগ থাকে। কিন্তু এক্সপার্ট লেভেলে চলে আসার পরে আমরা ভুল মেনে নিতে পারি না। তখনই গ্রোথ একটি পর্যায়ে আটকে যায়। তখন আমাদের মধ্যে ‘অপিনিয়ন’ বা ভাবনা তৈরি হয়। অনেক কিছুই আমরা মেনে নেই না। বিগিনারদের মত চিন্তা ভাবনা থাকলে আমাদের ঘোরাঘুরি করে নতুন করে জানার সুযোগ থাকে। নতুন নতুন বিষয় সম্পর্কে তখন আমরা নিজেরা নিজেদের আগ্রহী করে তুলতে পারি। শিশুদের দিকে তাকালে বিষয়টা দেখা যায়। শিশুরা যেমন সব জানতে চায়, সব শিখতে চায়-বিগিনার মাইন্ড হলো তেমনি একটি উপায়।
একজন এক্সপার্ট:
-কোন কাজ করার সঠিক পথটা জানে।
-নিজের সক্ষমতা সম্পর্কে আত্মবিশ্বাসী।
-আগের অভ্যাস, ধারণা থাকে যা নতুন কিছু শিখতে বাঁধা দেয়।

একজন বিগিনার:
-কাজ করার অনেক পথ সম্পর্কে জানতে পারে। কোনটি সঠিক, কোনটি বেঠিক হতে পারে।
-সে জানে যে সে অনেক কিছু জানে না।
-একটা খালি মন নিয়ে নতুন তথ্য ও ভাবনা গ্রহণের জন্য তৈরি থাকে।
এবার ভাবুন কে হতে চান?

-- Stay cool. Embrace weird.
Total 156 views. Thank You for caring my happiness.

Comments

comments